Gym. / Home workout. / Home workout কী? / Home workout কত বছর করা প্রয়োজন?/ Home workout এর গুরুত্ব কী? Home workout in bangla.

Home workout কী? কেন করতে হয়? Home workout এর গুরুত্ব।

Home workout , Myfitnessyard.com
হোম ওয়ার্ক আউট


Gym যাওয়া বা Home workout করা দুইটাই সুস্বাস্থ্য বজায় রাখার জন্য সম ভূমিকা পালন করে।
Home workout হোক আর Gym workout হোক দুইটাই মূলত করা দরকার নিজেকে সুস্থ সবল রাখার জন্য।
আমি আজকে আপনাদের বলব home workout এর সম্মন্ধে কিছু গুরুত্বপূর্ণ বিষয়।

১) Home workout কী?

২) Home workout কী কী ?

৩) Home workout এর গুরুত্ব কী?

৪) Home workout কত বছর করা প্রয়োজন?

৫) Home workout কখন করা উচিত?




এখনকার ব্যস্ততা পূর্ণ জীবনের বেশিরভাগ লোকই তাদের সারাদিনের অনেকটা সময় বসে বসে অফিস বা অন্য কোনো জায়গায় বসে বসে কাজ করে কাটায়।
এর ফলে ওইসব লোকেদের বেশি হাঁটাচলা করার সুযোগ বা সময় হয়ে উঠে না। আর আমার সবাই বিবর্তন এর তথ্যের বিষয়ে কম বেশি জানি।
ঠিক এমনটাই হয় আমাদের শরীরের সাথে , নিয়মিত ব্যায়াম বা শরীর চর্চা আমাদের শরীরকে মজবুত করে, রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে, নানা ধরনের শারীরিক সমস্যা থেকে দূরে রাখে।
শরীরে বেশি পরিমাণ মেদ বা ফেট জমতে দেয় না। ফেট বেশি পরিমাণে শরীরে জমা হলেই নানা ধরনের রোগ ব্যাধির সৃষ্টি হয়।

এখন প্রশ্ন আসে Home workout টা কী জিনিস?


Home workout কী?


         সাধারণত ওজন হাতে নিয়ে শরীরের বিভিন্ন অংশে কে ট্রেনিং করানো কে workout বা exercise বলে। Gym গিয়ে ডাম্বেল বা বরবেল দিয়ে করা হলে সেটা হয় gym workout আর সেইম ভাবেই এই exercise গুলো বাড়িতে করলে ওটাকে বলে Home workout । বাড়িতে এত বেশি পরিমাণে ওজনের ব‍্যবস্হা করা যায় না বলে নিজের শরীরের ওজন কেই কাজে লাগিয়ে exercise করতে হয়।
তাছাড়া প্রয়োজন অনুসারে আমরা জল ভর্তি বোতল , ইট , স্কুল ব্যাগ ব‍্যবহার করতে পারি। স্কুল ব্যাগের ভেতরে আমরা ওজন বৃদ্ধির জন্য বই রেখে এক্সারসাইজ করতে পারি।


Home workout কী কী?


            বাড়িতে আমরা সারা গায়ের ট্রেনিং ই করতে পারি, বাইসেপ , ট্রাইসেপ, সোল্ডার, লেগ, চেস্ট। home workout এর মূল exercise টাই হল রানিং বা দৌড় । রানিং সম্পূর্ণ শরীরের ট্রেনিং এর জন্য খুব উপকারী।
             পুস আপ , ৩ ধরনের পুস আপ ৩ সেট করে করা দরকার , এতে চেস্ট, সোল্ডার ও ট্রাইসেপ এর এক্সারসাইজ হয়।
             পুল আপ ১০-১২ টা করে ৩-৪ সেট পুল আপ কাধ এবং পিঠের জন্য খুব উপকারী এক্সারসাইজ। প্রান্ট পুল আপ এবং বেক পুল আপ দুটাই ৩,৩ সেট করা দরকার।
            সিট আপ , এই এক্সারসাইজ কোনো রকম ওজন ছাড়াই করা যায় ,এই এক্সারসাইজ শরীরের মধ‍্য ভাগকে মজবুত করতে খুব উপযোগী।
            উঠ বস করা , কাঁধে স্কুল ব্যাগ নিয়ে উঠ বস করলে পায়ের খুব ভালো এক্সারসাইজ হয়।
            বেঞ্চ প্রেস, বেঞ্চ সুয়ে ইট বা জল ভর্তি বোতল দিয়ে আমরা বেঞ্চ প্রেস করতে পারি যা বুকের খুব উপযোগী এক্সারসাইজ।
         এই হল কিছু গুরুত্বপূর্ণ এক্সারসাইজ যা জিম না গিয়ে ই বাড়িতে অনায়াসে করা যায়।

Home workout এর গুরুত্ব কী?


             ১) জিম যাওয়ার জন্য নির্দিষ্ট সময়ের প্রয়োজন নেই। ‌         
           ২) যেকোনো সময় অবসর সময়ে এক্সারসাইজ করা যায়।
          ৩) এক্সারসাইজ এর জন্য আলাদা টাকা খরচা করতে হয় না।
         ৪) সুস্বাস্থ্য বজায় রাখতে খুবই গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।
         ৫) শারীরিক ও মানসিক দিক থেকে আমাদের শক্তিশালী করে তোলে।


Home workout কত বছর করা দরকার?


          ‌ এর জন্য কোনো নির্দিষ্ট সময় সীমা নেই যখন আমরা একটানা নিয়মিত এক্সারসাইজ করতে আরম্ভ করি তখন কিছু দিন পর এটা অভ‍্যাসে পরিনতি হয়ে যায়। আর নিজের সুস্বাস্থ্য বজায় রাখার জন্য নিয়মিত রোজ ই কিছু সময় বাড়িতে এক্সারসাইজ করা দরকার।

Home workout কখন করা দরকার?


 ‌         এক্সারসাইজ করার দুটাই সময় সকাল অথবা বিকাল আর অন্য সময় এক্সারসাইজ করা সাধারণ মানুষের জন্য ততটা উপযোগী ধরা হয় না। তবে একটা কথা মাথায় রেখা দরকার এক্সারসাইজ করার ১ ঘন্টা আগে হাল্কা কিছু খাবার খেয়ে নেয়া প্রয়োজন।

         এই ছিল home workout নিয়ে কিছু গুরুত্বপূর্ণ তথ্য। অবশ্যই নিজেকে সুস্থ সবল রাখার চেষ্টা করুন আর জিম যাওয়ার সময় না পেলেও বাড়িতে এক্সারসাইজ করার চেষ্টা করুন।


Follow me on Facebook👍

No comments

Featured Post

Gym. / All about gym in हिंदी & বাংলা. / Gym fitness.

                    Gym जाने का सही उम्र:- नमस्कार दोस्तो में हो  देबजित देब  ओर आपलोगो को स्वागत करता हो मेरा यार्ड  फिटनेस यार्ड...

Powered by Blogger.